ফেসবুকের নেশায় আক্রান্ত বৌকে ডিভোর্স দিতে কোর্টে গেলেন স্বামী - তারপর কি হল ?



ফেসবুকের নেশায় আক্রান্ত বৌকে ডিভোর্স দিতে কোর্টে গেলেন স্বামী -
বৌ-এর সোশ্যাল নেটওয়ার্কের নেশা ছাড়াতে না পেরে দিল্লির  ফ্যামিলি কোর্টের দ্বারস্থ হলেন এক হতভাগ্য স্বামী । ভদ্রলোকের মতে, দেখাশুনা করে বিয়ে করার পর তিনি খেয়াল করেন তার স্ত্রী ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ , স্ন্যাপচ্যাট - এই ধরনের সোশ্যাল নেটওয়ার্কে অনেক সময় কাটায় । প্রথমে তিনি মনে করেন বিয়ের পর সংসারে মন লাগালে এই নেশা কেটে যাবে । কিন্তু , তার এই ধারনাকে ভুল প্রমানিত করে বিয়ের কয়েক মাসের মধ্যে ভদ্রমহিলার এই নেশা চরম মাত্রায় পৌছে যায় । পরিবারের খেয়াল রাখা , স্বামীর যত্ন নেওয়া , রান্নাবান্না করা বা পারিবারিক সামান্য কাজ গুলো করার সময়টুকুও হয়ে ওঠে না নববিবাহিতা স্ত্রীর । ৬ মাসের মধ্যে পরিস্থিতি গুরুতর হয়ে ওঠে , রাত জেগে ছেলে বন্ধুদের সাথে একনাগারে চ্যাট করা , সকাল ৯ টার পর ঘুম থেকে ওঠা , এইভাবে সংসার করবে বলে মনঃস্থির করে ফেলেন মহিলা । এই ধরনের জীবন যাপনে যাতে কোনো অসুবিধা না হয় , তাই স্বামীকে জোর করেন আলাদা বাসা ভাড়া করে থাকার এবং শ্বশুর শ্বাশুড়িকে কোনো টাকা পয়সা না দেওয়ার । 
এই সবের বিরোধিতা করায় ভদ্রমহিলা বধূ নির্যাতনের মামলা করার হুমকি দেন এবং স্বামীর সাথে সমস্ত শারীরিক সম্পর্ক বন্ধ করে দেন ।
সংসার রক্ষার আর কোনো উপায় নেই দেখে ভদ্রলোক কোর্টের দ্বারস্থ হন । 
ম্যারেজ কাউন্সেলার বিষয়টি ভালোভাবে দেখেন এবং দুই পক্ষকেই নিজ নিজ জায়গাটি ভাববার জন্য কিছু সময় দেন । 
কাউন্সেলার এও বলেন - " আগেকার দিনে পন , বধু নির্যাতন , যৌন সমস্যা প্রভৃতি কারনে বেশীরভাগ ডিভোর্স হত । কিন্তু গত কিছু কাল যাবদ ডিভোর্সের আবেদন গুলির  অন্যতম কারন হিসাবে সোশ্যাল মিডিয়ার নেশা একটা মূখ্য ভুমিকা গ্রহন করেছে । সমাজের জন্য এটা অশনি সংকেত হতে পারে । "
ফেসবুকের নেশায় আক্রান্ত বৌকে ডিভোর্স দিতে কোর্টে গেলেন স্বামী - তারপর কি হল ? ফেসবুকের নেশায় আক্রান্ত বৌকে ডিভোর্স দিতে কোর্টে গেলেন স্বামী - তারপর কি হল ? Reviewed by WisdomApps on July 24, 2018 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.